কোন মাস ও দিনে বিবাহ করলে অমঙ্গল এবং কোন মাসে বিবাহ করলে মুস্তাহাব?

কোন মাস ও দিনে বিবাহ করলে অমঙ্গল এবং কোন মাসে বিবাহ করলে মুস্তাহাব?

কোন মাস ও দিনে বিবাহ করলে অমঙ্গল এবং কোন মাসে বিবাহ করলে মুস্তাহাব?

              💥بسم الله الرحمن الرحيم💥
⁦☀️⁩⁦نحمده و نصلي على رسوله الكريم أما بعد-☀️⁩
⁦✴️⁩সম্মানিত পাঠক ও পাঠিকা! আমাদের দেশে ও সমাজে বিবাহ কে নিয়ে বহু কুসংস্কার বিদ্যমান। কিছু মানুষের ধারণা ওমুক দিন অথবা ওমুক মাসে বিবাহ সম্পন্ন করলে অমঙ্গল হয়। যেমন আমাদের সমাজে প্রচলিত আছে মহরম মাসে ও ভাদ্র মাসে বিবাহ করা অমঙ্গল। তাছাড়া যেদিন বর অথবা কনে জন্মগ্রহণ করেছে সেই দিনেও বিবাহ করাটা অমঙ্গল মনে করা হয়। কিন্তু শরীয়তের দৃষ্টিতে যদি দেখা যায় তাহলে কোরান ও হাদিস থেকে আমরা স্পষ্ট বুঝতে পারি, সারা বছর যে কোন দিনে আপনি বিবাহ করতে পারেন। আপনার এই বিবাহে কোনরকম অমঙ্গল হবে না। তবে হ্যাঁ কিছু হাদিস থেকে এটা অবশ্যই বুঝা যায় যে, শাওয়াল মাসে বিবাহ করাটা মুস্তাহাব। কারণ নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম তাঁর সবথেকে প্রিয়তমা স্ত্রী হযরত আয়েশা সিদ্দীকা রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা কে শাওয়াল মাসেই বিবাহ করেছিলেন। যা নিম্নোক্ত হাদিস থেকে প্রতীয়মান হয় 👇
عَنْ عَائِشَةَ، قَالَتْ تَزَوَّجَنِي رَسُولُ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم فِي شَوَّالٍ وَبَنَى بِي فِي شَوَّالٍ فَأَىُّ نِسَاءِ رَسُولِ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم كَانَ أَحْظَى عِنْدَهُ مِنِّي ‏.‏ قَالَ وَكَانَتْ عَائِشَةُ تَسْتَحِبُّ أَنْ تُدْخِلَ نِسَاءَهَا فِي شَوَّالٍ
অর্থাৎ! আয়িশাহ রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেন, রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে শাওয়াল মাসে বিবাহ করেন এবং শাওয়াল মাসে আমার সাথে প্রথম মিলিত হন। রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর কোন স্ত্রী তার নিকট আমার চাইতে অধিক নৈকট্যপ্রাপ্ত ছিলেন? আয়িশাহ্ রাদিয়াল্লাহু আনহা তার বংশের মেয়েদের শাওয়াল মাসে বাসর ঘরে পাঠানো উত্তম মনে করতেন।
{{ সহীহ মুসলিম হাদিস নং-«3548 }}
{{ সুনানে নাসাঈ হাদিস নং-3249 ٫}}
عَنْ عَائِشَةَ، قَالَتْ تَزَوَّجَنِي رَسُولُ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم فِي شَوَّالٍ وَبَنَى بِي فِي شَوَّالٍ ‏.‏ وَكَانَتْ عَائِشَةُ تَسْتَحِبُّ أَنْ يُبْنَى بِنِسَائِهَا فِي شَوَّالٍ ‏.‏ قَالَ أَبُو عِيسَى هَذَا حَدِيثٌ حَسَنٌ
অর্থাৎ! আইশা রাদিয়াল্লাহু আনহা হতে বর্ণিত আছে, তিনি বলেন, শাওয়াল মাসে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে বিয়ে করেছেন এবং বাসর রাতও শাওয়াল মাসেই কাটিয়েছেন। শাওয়াল মাসে আইশা রাদিয়াল্লাহু আনহা তার পরিবারের মেয়েদের জন্য বাসর উদযাপনের ইচ্ছা করতেন।
{{ সুনানে তিরমিযী হাদিস নং-1116 }}
✳️ সম্মানিত পাঠকবৃন্দ উপরোক্ত হাদিসের আলোকে জর্জিয়া প্রতীয়মান হয় যে শ্রাবণ মাসে বিবাহ করা মুস্তাহাব তবে মনে রাখতে হবে যে এটা কোন ফরজ না ওয়াজিব কাজ নয় তবে যদি হাদীসের উপর আমল করার উদ্দেশ্যে শাওয়াল মাসে বিবাহ করেন তাহলে অবশ্যই মুস্তাহাব কর্মের নেকি পাবেন।
🤲 আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে সঠিক বুঝ দান করত কোরআন ও হাদিসের অনুযায়ী জীবন অতিবাহিত করার শক্তি প্রদান করুন! আমীন!
💥وما توفيقي الا بالله العلي العظيم و صلى الله تعالي على رسوله الكريم💥
⁦✍️⁩⁦মুফতী আমজাদ হুসাইন সিমনানী, প্রেসিডেন্ট সুন্নি মিশন✍️⁩
💎 থানা-কুশমন্ডি, জেলা- দক্ষিন দিনাজপুর, রাজ্য- পশ্চিমবঙ্গ, ভারত💎

Leave a Reply

This Post Has 4 Comments

  1. Sahida

    এই ধরনের অস্ত্রের খুব প্রয়োজন ছিল আমাদের সমাজে বহু মানুষ মনে করেন মহরম মাসে অথবা ভাদ্র মাসে বিবাহ করা নিষিদ্ধ ও অমঙ্গল হয়। যাই হোক কষ্ট থেকে আমরা অবশ্যই জানতে পেরেছি যে যেকোনো দিন ও যে কোন মাসে ইসলামের দৃষ্টিতে বিবাহ করা বৈধ ও জায়েদ রয়েছে সুতরাং মহরম মাসে বিবাহ করা জায়েজ হবে।

  2. Shahida

    এই ধরনের পোস্ট করার জন্য আপনাদেরকে অসংখ্য অসংখ্য ধন্যবাদ। আবেদন করব সমাজে আরো যে সমস্ত কুসংস্কার বিদ্যমান রয়েছে সে সমস্ত বিষয়ের উপর আলোকপাত করার যাহাতে মানুষ সচেতন হতে পারে এবং ইসলামিক জীবন যাপন করতে পারে।

  3. Mota

    Khub valo post

  4. Kaife

    Important message to all