যে ইমাম শুধু নিজের জন্য দোয়া করে

যে ইমাম শুধু নিজের জন্য দোয়া করে

যে ইমাম শুধু নিজের জন্য দোয়া করে।

জমাত সহকারে দোয়া হলে ইমাম/দোয়া কারী শুধু নিজের জন্য না; সকলের জন্য দোয়া করবে যদি সে শুধু নিজের জন্য দোয়া করে তবে সে খেয়ানতকারী(বিশ্বাসভঙ্গ কারী) হবে।
عَنْ ثَوْبَانَ، عَنْ رَسُولِ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم قَالَ ‏ “‏ لاَ يَحِلُّ لاِمْرِئٍ أَنْ يَنْظُرَ فِي جَوْفِ بَيْتِ امْرِئٍ حَتَّى يَسْتَأْذِنَ فَإِنْ نَظَرَ فَقَدْ دَخَلَ وَلاَ يَؤُمَّ قَوْمًا فَيَخُصَّ نَفْسَهُ بِدَعْوَةٍ دُونَهُمْ فَإِنْ فَعَلَ فَقَدْ خَانَهُمْ وَلاَ يَقُومُ إِلَى الصَّلاَةِ وَهُوَ حَقِنٌ ‏”‏ ‏.‏
হযরত সাওবান (রাদিয়াল্লাহু আনহু ) হতে বর্ণিত আছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ বাড়ির মালিকের অনুমতি ছাড়া কোনও ব্যক্তির পক্ষেই তার ঘরের মধ্যে তাকানো জায়িয নয়। যদি সে তাকায়, তবে সে যেন বিনা অনুমতিতেই তার ঘরে ঢুকলো। কোন ব্যক্তির পক্ষেই এটা শোভনীয় নয় যে, সে লোকদের ইমামতি করে এবং তাদেরকে বাদ দিয়ে শুধু নিজের জন্য দোয়া করে। যদি সে এমনটি করে তবে সে যেন শঠতা (বিশ্বাসভঙ্গ) করল। প্রাকৃতিক প্রয়োজন (পায়খানা পেচ্ছাব)-এর বেগ নিয়েও কেউ যেন নামাযে না দাড়ায়।(তিরমিযী শরীফ হাঃ 357)
সুতরাং যখন সম্মিলিত দোয়া হবে তখন ইমাম সাহেব এর উচিৎ হবে এমন ভাষা ব্যবহার করা যাতে সবাই শরিক হয় এবং আরবীতে দোয়া করলে ওয়াহেদ মুতাকাল্লিম-এর জায়গায় জামা মুতাকাল্লিম-এর সেগা ব্যবহার করা।
দোয়া প্রার্থীঃ
মুফতী আব্দুল আযীয কালিমী মোঃ9734135362
15/12/2020
নোট:- কোন মসআলা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে আমাদেরকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন আমাদের
SIMNANI RESEARCH CENTRE & HOLY-WAY TEAM

সমাজের পাশে দ্বীনের খেদমতের জন্য সব সময় আছে।*আমাদের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্য-এই লিংকে ক্লিক করুন www.keyofislam.com

আমাদের Real Sunni TvHoly way ইউটিউব চ্যানেল গুলি কে  SUBSCRIBE করুন

Leave a Reply

This Post Has 4 Comments

  1. Anonymous

    Nice job

  2. Amjad husain

    Jazaakallah khaira

  3. Anonymous

    আস্সালামুআলাইকুম waromatullah huzur sommilito munaja somporke kichu likhoni diben